salman-katrina

আজও ক্যাটরিনার ‘ত্রাতা’ সালমান!

বিডিকষ্ট ডেস্ক

‘ক্যাটরিনা কাইফের জন্য সালমান খান তাঁর পক্ষে যা কিছু করা সম্ভব এর সবকিছুই করবেন।’ এ মন্তব্য এবারের ‘বিগ বস ৯’-এর গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠানটির এক প্রত্যক্ষদর্শীর। অবশ্য ত্রাতা কিংবা অভিভাবক হিসেবে ক্যাটরিনার জন্য এত দিন তা করেও এসেছেন সালমান। দিনকয়েক আগে মুম্বাইয়ের সংবাদমাধ্যমগুলো যখন রণবীর সংক্রান্ত নানা অপ্রিয় প্রসঙ্গ নিয়ে প্রায় ঝাঁপিয়েই পড়েছিল এই অভিনেত্রীর প্রতি। সে সময়েও কিন্তু ক্যাটরিনাকে এসব অপ্রিয় বিষয় আর কাদা ছোড়াছুড়ির হাত থেকে বাঁচাতে এগিয়ে এসেছিলেন এই সালমান খানই।

এদিকে ক্যাটরিনা প্রসঙ্গে সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে সালমান খান জানিয়েছেন, ক্যাটরিনার যেকোনো বিপদে তিনি এগিয়ে আসবেন। কেননা তাঁর যাবতীয় ভালো-মন্দের বিষয়গুলো নিয়ে তিনি আজও ভাবেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

অবশ্য শুধু মুখের কথাই নয়, বাস্তবে বহুবারই এর প্রমাণ দিয়েছেন সালমান খান। কিছুদিন আগে খবর রটেছিল যে রণবীর ও ক্যাটরিনার সম্পর্ক ভেঙে গেছে। তাঁরা আর একসঙ্গে নেই। আলাদা বাড়িতেই থাকছেন দুজন—এ খবরের মাঝেই বলিউডের বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল, রণবীরের সঙ্গে ছাড়াছাড়ির আগে ক্যাটরিনা নাকি সালমান খানের সঙ্গে এ বিষয়ে পরামর্শ নিতে গিয়েছিলেন।

 

e02f5d4c3c6388cf9fd30e10704ed2ba-salman_khan-katrina_kaif

যা হোক, এর আগে বহুবারই ক্যাটরিনার বিপদে এগিয়ে এসেছেন সালমান। ক্যাটরিনা কাইফের এই ‘বিপদের বন্ধু’ এবারও যখন রণবীর কাপুরের সঙ্গে ক্যাটরিনার সম্পর্কের ভাঙনের বিষয়টি জানাজানি হয়; সে সময়েও এগিয়ে এসেছিলেন সালমান। ‘বিগ বস ৯’-এর অনুষ্ঠানে ক্যাটরিনাকে ‘ফিতুর’ ছবির প্রচারের জন্য সুযোগ করে দিয়েছেন সালমান খান। বিগ বসের অনুষ্ঠানে মঞ্চে উপস্থিত ক্যাটরিনার সঙ্গে সালমানের কথাবার্তাতেও স্পষ্ট বোঝা গেছে, এ অভিনেত্রীর প্রতি সালমান আজও যথেষ্ট অনুরক্ত।

‘বিগ বস’ অনুষ্ঠানের একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, অনুষ্ঠানে এসে ক্যাটরিনা যেন কোনো ধরনের অস্বস্তিতে না পড়েন, সে কারণে তাঁর যাবতীয় বিষয় নিয়ে সালমান যা যা সম্ভব সবই করেছেন। নির্দেশ দিয়েছেন যেন এ অনুষ্ঠানে কোনো সংবাদমাধ্যম কর্মী ঢুকতে না পারেন। পাছে তাঁদের প্রশ্নে বিব্রত হতে হয় ক্যাটরিনাকে।

বিগ বস অনুষ্ঠানের ওই প্রত্যক্ষদর্শী আরও জানিয়েছেন, ক্যাটরিনা কাইফ যে সালমান খানের কাছে কতটা ‘বিশেষ’, এবারের বিগ বসে ক্যাটরিনার জন্য সালমানের চিন্তা আর বিভিন্ন উদ্যোগে তিনি স্পষ্ট বুঝেছেন।

 

2012-11-22-10-36-20-50ae00245b635-salman

এদিকে ক্যাটরিনাও কিন্তু তাঁর প্রতি সালমানের এই বিশেষ অনুরাগের বিষয়টি সম্পর্কে আগে থেকেই যথেষ্ট ওয়াকিবহাল। একবার মুম্বাইয়ের ফিল্ম সিটিতে ক্যাটরিনার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হলে সহ-অভিনেতা ও তাঁর সাবেক প্রেমিক সালমান খানেরই সাহায্য চেয়েছিলেন তিনি। আর ক্যাটরিনার ডাকে সে সময়েও সাড়াও দিয়েছিলেন সালমান। তাঁরই মধ্যস্থতায় সেবার সেই বিক্ষোভ বন্ধ হয়েছিল। আর এবারও সম্ভবত তিনি সালমানের কাছেই ছুটে গিয়েছিলেন।

সালমান খানের হাত ধরেই বলিউডে প্রতিষ্ঠা পেয়েছেন ক্যাটরিনা কাইফ। এক সময় সালমানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ালেও ক্যারিয়ারে সাফল্য পাওয়ার পর সালমানকে ছেড়ে রণবীর কাপুরের সঙ্গে সম্পর্ক গড়েন ক্যাটরিনা। কিন্তু সালমান খানের উদারতার কারণে বিচ্ছেদের পরও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় ছিল সালমান-ক্যাটরিনার।

২০১২ সালে ‘এক থা টাইগার’ ছবিতে জুটি বেঁধে অভিনয়ও করেছেন এই জুটি। কিছুদিন আগে একবার কিছু সময়ের জন্য সালমান-ক্যাটরিনার সম্পর্কের অবনতি হয়েছিল। সে সময় ক্যাটরিনার কাছ থেকে যতটা সম্ভব দূরে থাকারই চেষ্টা করছেন সালমান। অবশ্য সালমান সে সময় সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন, ‘আমাকে ছেড়ে অন্য কাউকে বন্ধু নির্বাচন করায় ক্যাটরিনার প্রতি আমার শ্রদ্ধা কমে যায়নি। আমি তাঁর কাছ থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করি এই কারণে যে “সালমানের সঙ্গে এখনো তোমার যোগাযোগ আছে?”—
ক্যাটরিনাকে কেউ এমন প্রশ্ন করার সুযোগ পাক আমি তা চাই না।’ সালমান খানের এই কথাতেও স্পষ্ট বোঝা যায় যে তিনি এই অভিনেত্রীর জন্য কতটা ভাবেন। তাঁর প্রতি কতটা অনুরক্ত তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Anti-Spam Quiz: