157628_187

অপূরবো বাংলা: শসৌন্দর্যের লীলাভূমি সিলেট

BDcost Desk:

৮ জুলাই পবিত্র ঈদুল ফিতরের পরের দিন আমরা ছয়জন হজরত শাহজালাল রহ: স্মৃতিবিজড়িত পুণ্যভূমি সিলেট রওনা হয়েছি। এর আগে আমি আর কখনো সিলেট আসিনি। মেজো জামাই যখন আমাকে তার পৈত্রিক নিবাস সিলেটে যাওয়ার প্রস্তাব দেয় তখন কোনো প্রকার ওজর না দেখিয়ে এককথায় রাজি হয়ে যাই। আমার মেয়ে, নাতি, জামাইসহ মোট ছয়জনের একটি গ্রুপ যাচ্ছি সিলেটে।

10100637535_1e63a14cdd_b
বেলা ৩টায় যাত্রা শুরু হলো। গাড়ি হাইওয়েতে ওঠার পর সাঁই সাঁই করে ছুটে চলছে গন্তব্যের পানে। আমার মেয়ে আঙ্গুল তুলে দূরের সারি সারি গাছ গাছালির দিকে ইঙ্গিত করে বলল, ‘আম্মা ওই যে দেখা যায় ওগুলো রাবার বাগান।’ তন্ময় হয়ে এ সবুজের মেলার প্রতি তাকিয়ে আছি। এ রাবার বাগান আমার স্মৃতিতে একটি স্থায়ী ছাপা রেখে গেছে। সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসছে। অস্তমিত সূর্যের লাল আর নীলের পরশে পশ্চিমে দিগন্ত এক অপরূপ শোভ ধারণ করল। জীবনে বহুবার সূর্যস্তের দৃশ্য দেখেছি। কিন্তু এমন অভূতপূর্ব দৃশ্য আর কখনো দেখিনি।

bichanakandi

আমরা সবাই সৃষ্টি জগতের স্রষ্টার প্রশংসা করছি। নাতনি লুবাবা উচ্ছ্বসিত হয়ে পূবের আকাশে ভাসমান সাদা একখণ্ড মেঘ দেখিয়ে বলল, ‘নানু দেখ ওই মেঘখণ্ড এত আলোকিত কেন?’ অবাক হয়ে তাকিয়ে আছি। মনে হচ্ছে এক আনির্বাচনীয় স্নিগ্ধ মনোরম আলোর বিচ্ছুরণে এই মেঘখণ্ড যেন নীল আকাশের শোভা আরো বহুগুণ বৃদ্ধি করে চলেছে। কোনো দিন কোনো শিল্পী কি তার রঙ-তুলির মাধ্যমে এমন দৃশ্য ফুটিয়ে তুলতে পারবেন? অসম্ভব! পৃথিবী ও আকাশ রাজত্বের অধিপতি নিজেই যেন তার রহস্যময় প্রকৃতির অপরূপ রূপ সৌন্দর্যের একটুখানি সে দিনের সন্ধ্যার আকাশে তুলে ধরেছেন।

tea-garden-2

এখন আমরা চলে যাচ্ছি চির সবুজের লীলাভূমি সিলেটের চা বাগান দেখতে। গাড়ি উপরে উঠছে, আর রাস্তার পাশের দৃশ্যমান প্রকৃতি তার রূপসৌন্দর্যে সুষমা ছড়িয়ে যেন হাতছানি দিয়ে ডাকছেÑ ‘এসো এসো এ অরণ্যরাজির নিবিড় ঘনিষ্ঠতার মাঝে পাবে তোমার প্রভুর পরিচয়।’ গাড়ি ইকোপার্কের গেটে এসে পার্ক করল। আমরা ভেতরে প্রবেশ করলাম। তবে পার্কে না গিয়ে টিলার চূড়ায় এসে সবাই দাঁড়ালাম। চারদিকে সবুজের সমারোহ। রাস্তার পাশের খাদের প্রতি নজর পড়লে মাথা ঘুরে যায়। একবার পা ফসকালে…। খাদের নিচ থেকে একহারা লম্বা গাছগুলো যেন মাথা তুলে অন্যদের সাথে কানাকানি করছে। দূর দিগন্তে যতদূর চোখ যায় শুধু উঁচু-নিচু টিলা আর টিলা। ওগুলোতে যেন সবুজের প্লাবন বয়ে যাচ্ছে।

stop2_putney_cscr_kristinwestby-224_ho_crop

বাতাসের সমুদ্রে অবগাহন করে ঢেউয়ের তালে তালে যেন সবুজ গাছের মাথা পাতা দুলিয়ে একবার ওপরে, একবার নিচে নামছে। সে এক অপূর্ব দৃশ্য! প্রকৃতির এমন ঘনিষ্ঠতায় আগে কখনো আসিনি। এ এমন এক বিরল দৃশ্য যা শুধু অনুভব করা যায়, ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। রহস্যময় প্রকৃতির অপূর্ব অনবদ্য সৌন্দর্যের মধ্যে দাঁড়িয়ে সেই মহান প্রভুর মহত্ত্বের শান দেখে আপনা থেকেই তার উদ্দেশ্যে মাথা অবনত হয়ে আসে। আর এ জন্যই কবি বলেছেন, ‘তোমার সৃষ্টি যদি এত সুন্দর/তাহলে না জানি তুমি কত সুন্দর’।

কেনার আগে অসংখ্য শপ থেকে মুহূর্তেই সর্বনিন্ম বাজার মূল্য যাচাই করতে ক্লিক করুনঃ BDcost

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Anti-Spam Quiz: